চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় ১০টি সহজ ও কার্যকরী পরামর্শ

0
483
চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় ১০টি সহজ ও কার্যকরী পরামর্শ
চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় ১০টি সহজ ও কার্যকরী পরামর্শ
Print Friendly, PDF & Email

এই সুন্দর পৃথিবী দেখার জন্য ও বেঁচে থাকার জন্য চোখ আমাদের জন্য কতোটা গুরুত্বপূর্ণ তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু আমরা অনেকেই চোখের যত্ন নিতে ভুলে যাই। দৃষ্টিশক্তি ঠিক রাখার জন্য শুধুমাত্র কিছু খাবার খেলেই চোখের স্বাস্থ্য ঠিক থাকে না। চোখের জন্য দরকার বিশেষ যত্ন। তাই চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় জেনে নিন কিছু সহজ ও কার্যকরী উপায়-

চোখ সুরিক্ষিত রাখতে ঘুম-

ঘুম চোখকে পরিপূর্ণ বিশ্রাম ও পূর্ণদৃষ্টির জন্য শক্তি দেয়। অপর্যাপ্ত ঘুম দৃষ্টিশক্তির ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। চোখ সুরিক্ষিত রাখতে নিয়মিত ঘন্টা ঘুমান।

রোগজীবাণু দূর করতে-

তিন বেলা চোখে পানির ঝাপটা দেয়ার চেষ্টা করুন। বিশেষ করে বাইরে থেকে ঘরে ফিরে চোখ ভালো করে ধুয়ে ফেলবেন। এতে বাইরের ধুলোবালিতে মিশে থাকা রোগজীবাণু দূর হবে। প্রতিদিন অন্তত বার চোখের ওপরে ঠাণ্ডা পানি ভেজানো কাপড় ১০-১৫ মিনিট দিয়ে রাখুন। এতে চোখের কর্নিয়া সুস্থ থাকবে।

মেকাআপ করার সময় সচেতনতা-

মেয়েরা ঘরে ঢোকা মাত্র চোখের মেকআপ তুলে ফেলবেন। বেশি জোরে ঘষে চোখের মেকআপ তুলবেন না। নারকেল তেল বা অলিভ অয়েলের সাহায্য আলতো করে চোখের মেকআপ তুলুন। সম্ভব হলে চোখে কাজল দেয়া থেকে বিরত থাকুন।

পর্যাপ্ত আলোতে কাজ করুন-

কম আলো বা প্রয়োজনের তুলনায় বেশি আলো দুটোই চোখের জন্য খারাপ। তাই কাজ করার সময় খেয়াল রাখুন আপনার কাজের পরিবেশের আলো পর্যাপ্ত কিনা। কম আলোতে বই পড়বেন না।

স্ক্রিনের দিকে অপলক তাকিয়ে থাকলে-

অনেকেই কাজ করার সময় টানা কাজ করে যান। আর ঘন্টার পর ঘন্টা অপলক তাকিয়ে থাকেন মনিটর বা টেলিভিশনের স্ক্রিনের দিকে। এটা করবেন না। কিছুক্ষণ কাজ করে একটু বিশ্রাম নিন। চোখের পলক বার বার ফেলে চোখকেও বিশ্রাম দিন। কাজের ফাঁকে একটু হেঁটে আসুন।

সবুজ শাক-সবজি-

নিয়মিত সবুজ শাক-সবজি খান। পেঁপে, আম, পেয়ারা, আমড়া, বাতাবিলেবু, টোমেটো, গাজর, শশা, লাল শাক, পালংশাক প্রভৃতি মৌসুমী শাক-সবজি, ফলমূল রাখুন প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায়। প্রচুর মাছ খাবেন। মাছে আছে ওমেগা থ্রি ও ফ্যাটি এসিড- এটি চোখের জন্য উপকারী।

সূর্য থেকে চোখকে রক্ষা করুন

রোদে বাইরে গেলে সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মির হাত থেকে চোখ রক্ষা করার জন্য ব্যবহার করুন ছাতা ও সানগ্লাস। সানগ্লাসের ক্ষেত্রে ভালো মানের দিকে খেয়াল রাখবেন কারণ নিম্ন মানের সানগ্লাস পরিধান করলে আপনার চোখের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন-

ওজন বাড়লে শরীরের সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গেই সমস্যা দেখা দেয়। হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস সহ নানা রকম রোগ শরীরে বাসা বাঁধার সুযোগ পায়। এর ফলে চোখের ক্ষতি হতে পারে।

মানসিক চাপ-

মন কেবল মনের উপরই চাপ রাখে না। মনের চাপের প্রতিফলন ঘটে শরীরে। মানসিক চাপের কারণে গ্লুকোমা বাড়তে পারে। নিজেকে সবসময় মানসিক চাপ থেকে দূরে রাখুন।

চশমা বা কনট্যাক্ট লেন্স ব্যবহারে-

চশমার পাওয়ার বাড়লো বা কমলো কিনা সেটা খেয়াল রাখুন। চোখ পরীক্ষা করে চশমা বা কনট্যাক্ট লেন্স ব্যবহার করুন। ব্যবহারের সময় স্বাস্থ্যবিধি মেন চলুন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে কর্নিয়ায় ইনফেকশন হতে পারে।

নিয়মিত চোখ পরিক্ষা করানো উচিত। কারণ, চোখের রোগ নিঃশব্দে বিস্তার করে। চোখের যত্ন নিন, সুস্থ ও সতেজ থাকুন।

আরও জানুন » ইন্টারনেট পর্ণগ্রাফি পূরুষদের যৌন ক্ষমতা নষ্ট করে ফেলছে »

Comments

comments